Date: December 02, 2022

দৈনিক দেশেরপত্র

collapse
...
Home / খেলাধুলা / ‘স্বপ্ন পূরণের’ শেষ সুযোগের আগে দারুণ অনুভব করছেন মেসি - দৈনিক দেশেরপত্র - মানবতার কল্যাণে সত্যের প্রকাশ

‘স্বপ্ন পূরণের’ শেষ সুযোগের আগে দারুণ অনুভব করছেন মেসি

November 22, 2022 02:21:36 PM   ক্রীড়া ডেস্ক
‘স্বপ্ন পূরণের’ শেষ সুযোগের আগে দারুণ অনুভব করছেন মেসি

বিশ্বকাপ ছাড়া ফুটবল ক্যারিয়ারে লিওনেল মেসির সম্ভাব্য সবকিছুই জেতা হয়ে গেছে। বিশ্বকাপটা জিতলে শতাব্দীর সেরা ফুটবলার বলতে তাকে নিয়ে আর দ্বিধা থাকার কথা নয় কারো। ক্যারিয়ারের প্রান্ত সীমায় এসে তাই বহুদিন ধরে লালিত সবচেয়ে বড় স্বপ্নটা পূরণ করতে মরিয়া এই মহাতারকা। সৌদি আরবের বিপক্ষে নামার আগে জানালেন, প্রতিটি মুহূর্ত উপভোগ করে শেষটা রাঙাতে দারুণ ফুরফুরে অবস্থায় আছেন তিনি। আজ মঙ্গলবার বাংলাদেশ সময় বিকেল ৪টায় 'সি' গ্রুপে লড়াইয়ে সৌদি আরবের বিপক্ষে নামবে আর্জেন্টিনা। বিশ্বকাপের আগে টানা ৩৬ ম্যাচ ধরে অপরাজিত থাকা দলটি এবার প্রতীক্ষায় আছে ৩৬ বছর পর বিশ্বকাপ ট্রফি উঁচিয়ে ধরার। এই লক্ষ্য পূরণে কোটি কোটি আর্জেন্টিনাইন ভক্ত তাকিয়ে আছেন মেসির পা জোড়ার দিকে।
বিশ্বকাপে নিজেদের প্রথম ম্যাচের আগে দোহায় সংবাদ সম্মেলনে এই তারকা জানান, এটাই তার শেষ সুযোগ, 'এটা সম্ভবত আমার শেষ বিশ্বকাপ। বহুদিন ধরে আমাদের লালিত স্বপ্ন পূরণের জন্য, স্বপ্নকে বাস্তবে রূপ দেওয়ার জন্য এটাই শেষ সুযোগ। এর বাইরে বিশেষ কিছু না।' সময়ের অন্যতম সেরা ফুটবলার হওয়ায় মেসিকে ঘিরেই বিশ্বকাপের উন্মাদনা বেশি। লাইমলাইটের অনেকটা জুড়েই তিনি। জানালেন এমন বড় মঞ্চে প্রতিটা মুহূর্তকে উপভোগের মন্ত্রে নিজেকে চাঙা রাখতে চান তিনি,  'আমি জানি না এটা আমার সবচেয়ে আনন্দের মুহূর্ত কিনা, কিন্তু আমি দারুণ অনুভব করছি।' 'আমার বয়স বেড়েছে, এখন আরও পরিণত। আমি যতটা সম্ভব নিতে চাই। চূড়ান্ত তীব্রতা নিয়ে প্রতিটি মুহূর্ত উপভোগ করতে চাই।'
কাতারে গিয়ে দলের সঙ্গে অনুশীলন করতে দেখা যায়নি মেসিকে। এই মহাতারকার কোন চোট সমস্যা হলো না তা নিয়ে তৈরি হয় গুঞ্জন। তবে মেসি নিজেই জানালেন, শতভাগ ফিট ও ফুরফুরে আছেন তিনি, 'আমি খুব ভালো আছি। আমার মনে হয় এখানে এসেছি খুব ভালো ছন্দ নিয়ে। ব্যক্তিগতভাবে ও শারীরভাবে আমার কোন সমস্যা নেই। অনুশীলন না করায় কিছু গুজব ছড়িয়ে পড়েছিল। আসলে আলাদা অনুশীলন করেছি স্রেফ সতর্কতার অংশ হিসেবে, এটা অস্বাভাবিক কিছু না।' সাধারণত বিশ্বকাপ হয় জুন-জুলাই মাসে। কাতারের তাপমাত্রার কথা মাথায় রেখে এবার আসরটি এসেছে শীত মৌসুমে। এতে কিছু ভিন্নতা থাকলেও প্রস্তুতিতে নতুনত্বের কিছু দেখছেন না আর্জেন্টিনা অধিনায়ক, 'বছরের ভিন্ন একটা সময়ে খেলা হচ্ছে। সাধারণ বিশ্বকাপ আমরা মৌসুম শেষে খেলি। পুরো মাস জুড়ে প্রস্তুতি নেই। কিন্তু এখন হাতে এরকম সময় ছিল না। পরিস্থিতি যেহেতু জানতাম সেভাবেই তৈরি হয়েছি। কারণ বিশ্বকাপে খেলাটা বরাবরই বিশেষ।' 'না। সেরকম না (ভিন্ন প্রস্তুতি)। আমি ভিন্ন কিছু করিনি। যেমনটা সব সময় করি সেভাবেই প্রস্তুত হয়েছি।'