Ultimate magazine theme for WordPress.

স্ত্রীর থেকে দূরে থাকতে করোনার ভুয়া রিপোর্ট!

নিউজ ডেস্ক:
স্ত্রীর কাছ থেকে দূরে থাকতে ভুয়া করোনা রিপোর্ট বানালেন এক যুবক। শুনতে অবাক লাগলেও এমনই ঘটনা ঘটেছে ভারতের মধ্যপ্রদেশে।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম নিউজ ১৮-এর প্রতিবেদনে বলা হয়, মউ নামে মধ্যপ্রদেশের ইন্দোর জেলার ২৬ বছর বয়সী ওই যুবকের চলতি বছরের ফেব্রুয়ারিতেই বিয়ে হয়। কিন্তু দাম্পত্য সমস্যার কারণে হঠাৎই নিজের স্ত্রীর কাছ থেকে দূরে থাকার সিদ্ধান্ত নেন তিনি। সে জন্য তিনি একটি প্রাইভেট ল্যাবের ওয়েবসাইট থেকে অন্য এক কোভিড পজিটিভ ব্যক্তির রিপোর্ট ডাউনলোড করেন। তারপর সেটি সম্পাদনা করে ওই ব্যক্তির নামের জায়গায় নিজের নাম বসিয়ে দেন। এরপরই হোয়াটসঅ্যাপে সেই ছবি পাঠিয়ে দেন বাড়িতে। এরপর বাড়ি ছেড়ে অন্যত্র চলে যান।

জানা গেছে, ওই যুবকের শরীরে করোনার কোনো উপসর্গই দেখা যায়নি। আর এতেই সন্দেহ হয় বাড়ির লোকজনের। তাঁরা ওই বেসরকারি ল্যাবে ফোন করেন। তারপর জানতে পারেন, তিনি ভুয়া রিপোর্ট তৈরি করেছেন। এর পরই ওই যুবকের নামে থানায় মামলা করে বেসরকারি ল্যাবটি। অভিযুক্ত ওই যুবেকর বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির একাধিক ধারায় মামলা হয়। শুধু তা–ই নয়, তাঁকে থানায় হাজিরা দিতে নোটিশও পাঠানো হয়।

এ নিয়ে ইন্দোর জেলার ছোটি গওয়ালতলি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সঞ্জয় শুক্লা বলেন, অভিযুক্ত যুবক হোয়াটসঅ্যাপের মাধ্যমে তাঁর বাবা ও স্ত্রীকে ভুয়া রিপোর্ট পাঠান এবং বাড়ি থেকে চলে যান। যখন তাঁর পরিবারের সন্দেহ হয়, তারা ল্যাবটির সঙ্গে যোগাযোগ করে। ল্যাব থেকে তারা ভুয়া করোনার রিপোর্ট তৈরির বিষয়টি জানতে পারে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.