Date: December 02, 2022

দৈনিক দেশেরপত্র

collapse
...
Home / খেলাধুলা / ব্রাজিল সম্পর্কে সবাই জানি, তাদের বিরুদ্ধে খেলা সহজ নয় -সার্বিয়ান অধিনায়ক ডুসান - দৈনিক দেশেরপত্র - মানবতার কল্যাণে সত্য...

ব্রাজিল সম্পর্কে সবাই জানি, তাদের বিরুদ্ধে খেলা সহজ নয় -সার্বিয়ান অধিনায়ক ডুসান

November 24, 2022 03:05:41 PM   ক্রীড়া প্রতিবেদক
ব্রাজিল সম্পর্কে সবাই জানি, তাদের বিরুদ্ধে খেলা সহজ নয় -সার্বিয়ান অধিনায়ক ডুসান

এইচ এম রাকিব:
সৌদি আরবের কাছে আর্জেন্টিনার হার বড় দলগুলোর প্রতি একটা সতর্ক বার্তা। ফেভারিট দলগুলো এখন বাড়তি হিসাব-নিকাশ কষছে। আজ লুসাইল স্টেডিয়াম সার্বিয়ার বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে বিশ্বকাপ মিশন শুরু করবে পাঁচবারের চ্যাম্পিয়ন ব্রাজিল। গত মঙ্গলবার এ মাঠেই আর্জেন্টিনাকে ২-১ গোলে হারিয়ে ইতিহাস গড়েছে সৌদি আরব। এশিয়ান দলটির তুলনায় সার্বিয়া আরও গোছানো আর শক্তিশালী দল। ফিফা র‌্যাঙ্কিংয়ে ২১ নম্বরে সার্বিয়া। র‌্যাঙ্কিংয়ে শীর্ষে থাকা ব্রাজিল তাদের সমীহ করছে। কাতারের দোহার লুসাইল আইকনিক স্টেডিয়ামে ‘জি’ গ্রুপের এই ম্যাচটি শুরু হবে বাংলাদেশ সময় আজ রাত ১টায়। ফিফা র‌্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষ দল ব্রাজিল এবারের কাতার বিশ্বকাপের হট ফেভারিট। ২০ বছর পর বিশ্বচ্যাম্পিয়ন হতে মুখিয়ে আছে ফুটবলপাগল দেশটি। মুকুট ফিরে পাওয়ার মিশন শুরু হচ্ছে ইউরোপের সমীহ জাগানিয়া দল সার্বিয়ার বিরুদ্ধে। শক্তির তারতম্যে সার্বিয়ানদের চেয়ে এগিয়ে থাকলেও সতর্ক থেকেই তাদের মোকাবিলা করবে ব্রাজিল। এমনই জানিয়েছেন সেলেসাও কোচ তিতে। ইতোমধ্যে বিশ্বকাপের আরেক হট ফেভারিট আর্জেন্টিনা অপ্রত্যাশিতভাবে সৌদি আরবের কাছে ২-১ গোলে হেরেছে। লিওনেল মেসিদের এই অবিশ্বাস্য পতনের পর অন্য ফেভারিটরা সতর্ক পদক্ষেপে পথ চলতে চায়। সার্বিয়ানদের বিরুদ্ধে নিজেদের শুরুর ম্যাচে ফেভারিট হলেও তাই অতি আবেগে ভেসে যাচ্ছে না টিম ব্রাজিল।
মিশন শুরুর আগে কোচ তিতে বলেন, ‘বিশ্বকাপে কোনো প্রতিপক্ষই সহজ নয়। এই মঞ্চে সবাই নিজেদের সেরাটা দিতে আসে। আমরা তাই কোনো প্রতিপক্ষকেই হালকাভাবে নিচ্ছি না। ওরাও (সার্বিয়া) ধারাবাহিকভাবে দারুণ খেলে চলেছে। ভালো ফর্মে আছে। তবে আমরা আমাদের সেরাটা খেলে জয় দিয়ে শুরু করতে চাই।’ বিশ্বকাপ বাছাই ও উয়েফা নেশন্স লিগে ধারাবাহিকভাবে ভালো খেলেছে সার্বিয়া। বিশ্বকাপেও এ ধারা ধরে রাখার প্রত্যয় ‘দ্য ঈগলস’দের। দলটির কোচ ড্রাগান স্টোকোভিচ বলেন, ‘ব্রাজিল অনেক বড় দল। কিন্তু আমরা তাদের সহজে ছেড়ে দেব না। ছেলেরা সেরাটা দিতে দৃঢ় প্রতিজ্ঞ। পয়েন্টের জন্যই খেলবে আমার দল।’ আশাবাদী সার্বিয়ান অধিনায়ক ডুসান টাডিচও, ‘আমরা আমাদের খেলাটা খেলার চেষ্টা করব। ব্রাজিল সম্পর্কে সবাই জানি। তাদের বিরুদ্ধে খেলা সহজ নয়। কিন্তু আমরা হাল ছেড়ে দেব না।’ চার বছর আগে রাশিয়া বিশ্বকাপেও গ্রুপ পর্বে মুখোমুখি হয়েছিল ব্রাজিল ও সার্বিয়া। ২০১৮ সালের ২৭ জুন মস্কোতে অনুষ্ঠিত ম্যাচে মিডফিল্ডার পাউলিনহো ও সেন্ট্রাল ডিফেন্ডার থিয়াগো সিলভার লক্ষ্যভেদে ২-০ গোলে জয় পেয়েছিল ব্রাজিল। বিশ্বকাপ ছাড়া আর একবারই একে অন্যের বিরুদ্ধে খেলেছে দুদল। ২০১৪ সালে সেই প্রীতি ম্যাচেও ১-০ গোলে জিতেছিল সেলেসাওরা। এবারের বিশ্বকাপে ঐতিহ্যের সাম্বা ছন্দ দেখাতে চায় ব্রাজিল। ২০০২ সালের পর ‘হেক্সা’ অর্থাৎ ষষ্ঠবার বিশ্বচ্যাম্পিয়ন হওয়ার লক্ষ্য তাদের। এই মিশনে ব্রাজিলের প্রাণভোমরা তারকা ফরোয়ার্ড নেইমার। তবে পিএসজি তারকা আকর্ষণের কেন্দ্রবিন্দুতে থাকলেও সেলেসাওদের এবারের দলটাতে সব পজিশনে আছে চৌকস সব খেলোয়াড়।
গোলপোস্টে অ্যালিসন বেকার থেকে শুরু করে রক্ষণভাগে থিয়াগো সিলভা, ডানিলো, মারকুইনহোস, ডানি আলভেজ, অ্যালেক্স সান্দ্রো, মাঝমাঠে ফ্যাবিনহো, কাসেমিরো, পাকুয়েটা, রিবেইরো, আক্রমণভাগে নেইমারের সঙ্গে ভিনিসিয়াস জুনিয়র, রিচার্লিসন, রাফিনহা, রডরিগোরা আছেন ফর্মের তুঙ্গে। ইতিহাস জানান দিচ্ছে, ব্রাজিলের শেষ চারটি বিশ্বকাপই এসেছে ইউরোপের বাইরে থেকে। ১৯৫৮ সালে তারা নিজেদের ইতিহাসে প্রথম বিশ্বকাপ জয় করে ইউরোপের দেশ সুইডেন থেকে। এরপর ১৯৬২ সালে দক্ষিণ আমেরিকার চিলি, ১৯৭০ সালে উত্তর আমেরিকার মেক্সিকো ও ১৯৯৪ সালে একই মহাদেশের যুক্তরাষ্ট্র থেকে শিরোপা জয় করে। অর্থাৎ প্রথমবার বাদে আর কোনোবারই ব্রাজিল ইউরোপ থেকে চ্যাম্পিয়ন হতে পারেনি। পেলের দেশ সবশেষ বিশ্বচ্যাম্পিয়ন হয়েছে ২০০২ সালে এশিয়ার দেশ জাপান-কোরিয়ায়। এবার আবারও এশিয়াতে ফিরেছে বিশ্বকাপ। যে কারণে অতীত ইতিহাসের ধারা অনুযায়ী এবার ব্রাজিলের বিশ্বকাপ জয়ের দারুণ সম্ভাবনা রয়েছে। একমাত্র এই লক্ষ্য নিয়ে সার্বিয়ানদের বিরুদ্ধে জয় দিয়ে মিশন শুরু করতে মুখিয়ে আছে টিম ব্রাজিল। আজ রাতে বিশ্বকাপ মিশন শুরু করছে সুপারস্টার ক্রিস্টিয়ানো রোনাল্ডোর পর্তুগালও। দোহার স্টেডিয়াম ৯৭৪ এ ‘এইচ’ গ্রুপের ম্যাচে পর্তুগিজদের প্রতিপক্ষ আফ্রিকান দেশ ঘানা। এই ম্যাচটি মাঠে গড়াবে রাত ১০টায়।