Date: December 02, 2022

দৈনিক দেশেরপত্র

collapse
...
Home / সারাদেশ / চট্টগ্রাম / লক্ষ্মীপুর জেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলন মঙ্গলবার - দৈনিক দেশেরপত্র - মানবতার কল্যাণে সত্যের প্রকাশ

লক্ষ্মীপুর জেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলন মঙ্গলবার

November 21, 2022 08:34:06 PM  
লক্ষ্মীপুর জেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলন মঙ্গলবার

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি:
ব্যাপক আয়োজনের মধ্য দিয়ে আজ ২২ নভেম্বর মঙ্গলবার অনুষ্ঠিত হচ্ছে লক্ষ্মীপুর জেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন। সম্মেলনকে কেন্দ্র করে ব্যানার-ফেস্টুনে ছেয়ে গেছে জেলা শহর। সাজ সাজ রব বিরাজ করছে সর্বত্রে। নতুন কমিটিতে নেতৃত্বে আসছেন কারা তা নিয়েও চলছে জল্পনা-কল্পনা।

জানা যায়, লক্ষ্মীপুর জেলা আওয়ামীলীগের সর্বশেষ সম্মেলন হয় ২০১৫ সালের ৩ মার্চ। ওই সময়ে গোলাম ফারুক পিঙ্কুকে সভাপতি ও অ্যাডভোকেট নুর উদ্দিন চৌধুরী নয়নকে সাধারণ সম্পাদক করে লক্ষ্মীপুর জেলা আওয়ামী লীগের কমিটি ঘোষণা করা হয়। দীর্ঘ বছর পর অবশেষে ঐতিহ্যবাহি এ সংগঠনের ত্রি-বার্ষিক জেলা সম্মেলন ২২ নভেম্বর (মঙ্গলবার) অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। জেলা স্টেডিয়াম মাঠে অনুষ্ঠিত এ সম্মেলনে ব্যাপক আয়োজন করা হয়েছে। প্রায় এক লাখ লোকের সমাগম ঘটানোর টার্গেট নিয়ে সম্মেলনকে সফল করতে ৭টি উপ-কমিটি গঠন করা হয়েছে। মাঠের পূর্ব পাশে মঞ্চ তৈরীর কাজও অনেকটা শেষ পর্যায়ে। সম্মেলনকে ঘিরে নেতা-কর্মীদের মাঝে ব্যাপক উৎসাহ উদ্দিপনা বিরাজ করছে। শহরজুড়ে পদ-প্রত্যাশীদের ব্যানার-ফেস্টুন ও বিলবোর্ডে ছেয়ে গেছে। সড়কে সড়কে নির্মাণ করা হয়েছে শতাধিক তরুন। কেন্দ্রীয় নেতাদের শুভেচ্ছা ও নিজেদের অবস্থান জানান দেয়ার প্রচারনায় এখন সাজ সাজ রব বিরাজ করছে সর্বত্রে। বর্ধিত সভা ও তৃণমূল প্রস্তুতি সভাসহ বর্ণ্যাঢ্য আয়োজনের কর্মযজ্ঞে আর তদবির লবিংয়ে এখন ব্যাস্ত রয়েছে সবাই। শীর্ষ দুই পদ (সভাপতি ও সম্পাদক) নিয়ে চলছে টানাটানি। প্রার্থী হয়েছেন অন্তত এক ডজন নেতা। তাদের মধ্যে আলোচনায় রয়েছেন সভাপতি পদে জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বীরমুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ শাহজাহান, জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি সফিকুল ইসলাম, বর্তমান সভাপতি গোলাম ফারুক পিংকু। সাধারণ সম্পাদক পদে ঘুরে ফিরে লক্ষ্মীপুর জেলা আওয়ামী লীগের বর্তমান সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট নুর উদ্দিন চৌধুরী নয়ন এমপির নাম আলোচনায় সরব হয়ে উঠেছে।

তবে নেতৃত্বে আসছেন কারা এ নিয়ে আলোচনা সমালোচনায় মুখরিত হয়ে পুরো জেলায় রাজনৈতিক মাঠ বেশ সরগরম হয়ে উঠেছে বর্তমানে। উৎসাহের কমতি নেই তৃণমূল নেতাকর্মীদের মাঝেও।

জেলা আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজ কল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক সামছুদ্দিন সাজু বলেন, যেসব নেতারা দলের ও কর্মীর জন্য ত্যাগ স্বীকার করবে তাদের মধ্য থেকে নবীনদের নেতৃত্ব দিতে হবে। ওই নেতৃত্বকেই আমরা স্বাগত জানাবো এবং দলকে শক্তিশালী করে গড়ে তুলতে তাদের সাথে কাজ করবো।

রামগঞ্জ উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান সুরাইয়া আক্তার শিউলি জানান, বিএনপি দীর্ঘ দিন ঘাপটি মেরে বসে থেকে আবারও জ্বালাও পোড়াও রাজনীতি শুরু করতে চায়। জেলা আওয়ামী লীগ থেকে শুরু করে মহিলা আওয়ামী লীগ পর্যন্ত আমরা সুসংগঠিত রয়েছি বিএনপিকে প্রতিহত করার জন্য। ভবিষ্যতে যারা নেতৃত্বে আসবেন তারাও যেনো মহিলা আওয়ামী লীগকে আখড়ে রাখেন এমনটাই প্রত্যাশা করেন তিনি।

লক্ষ্মীপুর জেলা যুবলীগের সাবেক সভাপতি সালাহ উদ্দিন টিপু বলেন, দীর্ঘ দিন পর সম্মেলন হওয়ায় আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের সকল নেতাকর্মী উৎফুল্ল ও আনন্দিত। এ সম্মেলনে প্রবীন-নবীনদের সমন্বয়ে একটি কমিটি উপহার চান তিনি।

আবার কেউ কেউ বলছেন, বিএনপি-জামায়াতকে মাঠে প্রতিহত করতে শক্তিশালী কমিটি গঠনের বিকল্প নেই। জেলার ৪টি আসনে নৌকার বিজয় নিশ্চিতে নারী নেতৃত্বে অগ্রাধিকার দেয়াসহ প্রবীন-নবীনের সমন্বয়ে দক্ষ সংগঠকদের পদে আসীনের দাবী জানান অনেকে।  
   
জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট নুর উদ্দিন চৌধুরী নয়ন এমপি বলেন, লক্ষ্মীপুর  জেলা আওয়ামীলীগের সম্মেলন এ যাবৎকালের সেরা ও সুন্দর একটি সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে। সম্মেলনের সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করা হয়েছে। নেতা-কর্মীদের মাঝে উৎসাহ উদ্দিপনা করাজ করছে। দলের প্রয়োজনে শীর্ষ পদে যাকেই পদায়িত করা হয় সকল প্রার্থী তা মেনে নিবে বলে জানান তিনি। সম্মেলনে তৃণমূলের নেতাদের মধ্যে থেকে একটি শক্তিশালী কমিটি গঠন করা হবে।