Ultimate magazine theme for WordPress.

গাজীপুরে বিদ্যালয়ে বরাদ্দকৃত অর্থ আত্মসাতের অভিযোগ প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে

গাজীপুর প্রতিনিধি:
গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলার কাওরাইদ ইউনিয়নের বাপতা ঈদগাহ সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে করোনা পরবর্তী সংষ্কার ও মেরামতের জন্য বরাদ্দকৃত অর্থ আত্মসাতের অভিযোগ উঠেছে ওই বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে। উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের ম্যানেজ করেই নাকি এসব অর্থ লোপাট করেছেন তিনি। ম্যানেজিং কমিটির সদস্যরা বরাদ্দকৃত অর্থের হিসাব চাইতে গেলে কোনো সদুত্তর দিতে পারেননি বলে জানা গেছে।

জানা যায়, চলতি অর্থবছরে ওই বিদ্যালয়ের উন্নয়ন কার্যক্রমের জন্য ২ লক্ষ টাকা বরাদ্দ দেয় সরকার। ওই টাকা থেকে মাত্র ৫৯ হাজার টাকার কাজ করিয়ে বাকি অর্থ আত্মসাৎ করেন বিদ্যালয়টির প্রধান শিক্ষক বেলায়েত হোসেন। বরাদ্দকৃত অর্থের বিষয়টি সামনে আসলে তা ধামাচাপা দেয়ার চেষ্টা করেছেন বলেও সূত্র জানায়। অপরদিকে উন্নয়ন এবং ব্যয়ের হিসাব নিয়ে প্রশ্ন উঠলে প্রধান শিক্ষক বেলায়েত হোনেস ভুলভাল বুঝানোরও চেষ্টা করেন। তবে বিদ্যালয়টির রং এবং বারান্দার গ্রিলের কাজ বাবদ ৫৯ হাজার টাকা ব্যয় হয়েছে বলে জানিয়েছে একটি সূত্র।

বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সহ-সভাপতি ও স্থানীয় ইউপি সদস্য রিয়াজউদ্দিন মল্লিক বলেন, প্রধান শিক্ষক বেলায়েত হোসেনের কাছে আমরা উদ্ধৃত অর্থের হিসাব চাইলে তিনি আমাদের সঠিক হিসাব দেখাতে ব্যর্থ হন। উপজেলা শিক্ষা অফিসে ঘুষ দিয়ে ম্যানেজ করতে হয় বলে তিনি আমাদেরকে জানান।

সরকারী অর্থ কারচুপির বিষয়ে প্রধান শিক্ষকেের কাছে জানতে চাওয়া হলে, তিনি সদুত্তর দিতে না পেরে দৌড়ে স্থান ত্যাগ করেন।

এ বিষয়ে গাজীপুরের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা) আফরোজা আক্তার রিবা বলেন, প্রধান শিক্ষক বেলায়েত হোসেনের বিষয়ে অভিযোগের ব্যাপারে জেনেছি। তদন্ত করে তার বিরুদ্ধে কোনো প্রকার দুর্নীতির সাথে সম্পৃক্ততার প্রমাণ পাওয়া গেলে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলেও জানান তিনি।

Leave A Reply

Your email address will not be published.